মঙ্গলবার ১৮ জুন, ২০১৯

নারায়ণগঞ্জ র‍্যাবের অভিযান

জেএমবির ৩ সদস্য গ্রেফতার

মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর ২০১৭, ১৯:৫৩

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

ষ্টাফ রিপোর্টার (প্রেস নারায়ণগঞ্জ): রাজধানী ঢাকার রামপুরা এলাকায় পৃথক ৩টি স্থানে অভিযান চালিয়ে জিএমবি’র তিন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে নারায়ণগঞ্জের আদমজীতে অবস্থিত র‌্যাব-১১ এর সদর দপ্তরের সদস্যরা। সোমবার বিকেল ৫টা থেকে রাত ২টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো- মনিরুল ইসলাম ওরফে মনিরুল ওরফে হাফেজ মনির (৩২), আল আমিন (৩০) ও মহসিন তালুকদার ওরফে মিন্টু (৪৮)। এ সময় মনিরুল ইসলামের কাছ থেকে বেশ কিছু জঙ্গীবাদী বই ও লিফলেট উদ্ধার করা হয়। মনিরুল ওরফে হাফেজ মনির ও আল আমিন নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ থানায় সন্ত্রাস বিরোধী আইনের একটি মামলার (নং ২৭, তাং ১১/০৬/২০১৭) পলাতক আসামী ও মহসিন তালুকদার ওরফে মিন্টু ফতুল্লা থানার সন্ত্রাস বিরোধী আইনের একটি মামলার (নং ১০৫, তাং ২৯/০৭/২০১৭) পলাতক আসামী। মঙ্গলবার বিকেলে র‌্যাব-১১ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: শাকিল আহম এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

এদিকে র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তারকৃত জেএমবির ৩ সদস্যকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। জেএমবির সদস্য মনিরুল ইসলাম ওরফে হাফেজ মনির ও আল-আমিনকে ৫ দিন এবং মোহসিন ওরফে মিন্টুকে (৪৮) ৩ দিন করে রিমান্ড মুঞ্জুরের আদেশ দেন। মঙ্গলবার দুপুরে র‌্যাব জেএমবির ৩ সদস্যকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ইসরাত জাহান আদালতে হাজির করে। আদালত তাদের এই রিমান্ডের আদেশ দেন।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি আরো জানান, গ্রেপ্তারকৃত এই ৩জন নিজেদের পেশার আড়ালে নব্য জেএমবির সদস্যদের সঙ্গে কুমিল্লা, রাজশাহী, মুন্সীগঞ্জ ও রাজধানীর রামপুরাসহ বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে বিভিন্ন বয়সের মানুষের মাঝে বিভিন্ন ধরণের নোট শীটের মাধ্যমে দাওয়াতী কাজ করে আসছিল। তারা এ পর্যন্ত শতাধিক ব্যক্তিকে দাওয়াত দিয়ে জেএমবির পক্ষে কাজ করার জন্য সদস্য হিসেবেও অন্তর্ভূক্ত করেছে।

র‌্যাব আরও জানায়, মনিরুল ওরফে হাফেজ মনির ২০১৫ সালে জনি ওরফে মোহাম্মদের মাধ্যমে রামপুরা এলাকার দাওয়াতী শাখার আমীর সাইফুল গনি চৌধুরীর সঙ্গে তার পরিচয় হয় এবং সাইফুলের মাধ্যমে সে জেএমবিতে যোগদান করে দাওয়াতী কাজ শুরু করে। এই পর্যন্ত ২০-৫০ জনকে দাওয়াত দিয়ে জেএমবির পক্ষে কাজ করার জন্য সদস্য হিসেবে তৈরি করেছে। আলআমিন ২০১৫ সালে সে জনি ওরফে মোহাম্মদের মাধ্যমে রামপুরা এলাকার দাওয়াতী শাখার আমীর সাইফুল গনি চৌধুরীর সাথে পরিচিতি এবং ঘনিষ্ঠতার মধ্য দিয়ে জেএমবিতে যোগদান করে রামপুরা এলাকায় দাওয়াতী কাজ শুরু করে। মহসিন তালুকদার ওরফে মিন্টু ২০১৬ সালে আব্দুর রহমান ওরফে রুবেলে হাত ধরে সে জেএমবিতে যোগদান করে এবং নাফিস, আতর আলী, সিয়াম ও রুবেলসহ ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় যাতায়াতের মধ্য দিয়ে দাওয়াতী কাজ করে। র‌্যাব আরও জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার প্রস্তুতি চলছে। গ্রেফতারকৃত মনিরুলের বাড়ি ঝিনাইদহ, আলামীনের বাড়ি ময়মনসিংহ এবং মহসিনের বাড়ি যশোর জেলায় বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ