শুক্রবার ২৩ আগস্ট, ২০১৯

ছেলে ধরা গুজবে গণপিটুনি: সিদ্ধিরগঞ্জে দুই মামলায় আসামি ৬৪৫

রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯, ১৯:১৯

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সিদ্ধিরগঞ্জে দুই ঘন্টার ব্যবধানে পৃথক স্থানে ছেলেধরা সন্দেহে বাকপ্রতিবন্ধী যুবককে পিটিয়ে হত্যা ও মানসিক প্রতিবন্ধী নারীকে পিটিয়ে আহত করার ঘটনায় দু’টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। দুই মামলায় নামীয় ৯৫ ও অজ্ঞাত আরো ৫৫০ জনকে আসামি করা হয়েছে। এ ঘটনায় এ পর্যন্ত ১৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

রোববার (২১ জুলাই) সকালে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এসআই সাখাওয়াত হোসেন ও আহত নারীর মা বাদী হয়ে মামলা দু’টি দায়ের করেন।

আসামিরা হলেন- নোয়াখালীর সুধারামের চরমটুয়া এলাকার মকবুল আহম্মেদের ছেলে সোহেল (৩৫) সিদ্বিরগঞ্জ পূর্বচল মিজমিজি এলাকার মোস্তফার ছেলে আফজাল (২৭) , সিদ্ধিরগঞ্জ মিজমিজি এলাকার আবুবক্কর এর বাড়ির ভারাটিয়া নান্নু (৬৫), সিদ্ধিরগঞ্জ মিজমিজি এলাকার ফরেজ মিয়ার ছেলে রহমত উল্লাহ (২৮), কুমিল্লা মোরাদনগর দৌলতপুর এলাকার বাচ্চু খানের ছেলে আলআমিন (১৮), পাইনাদী নতুন ব্রীজ সিআই খোলা এলাকার মৃত উলিউল্লাহের ছেলে এনায়েত (৩৮), পাইনাদী মধ্যপাড়া এলাাকার মৃত ইমনের ছেলে রাজ্জাক (৪০), পাইদানী সিআই খোলা এলাকার ওমর আলীর ছেলে আলী (৩৫), মধ্যপাড়া আইদানী এলাকার ই¯্রাফিলের ছেলে সোহাগ (৩২), হিরাজিল এলাকার আকরাম (৪৮), উত্তরপাড়া কদমতলী এলাকার হুময়িুর কবিরের ছেলে তাজজিম আহমেদ, বাতারপাড়া এলাকার হানিফের ছেলে নাহিদ (২৬), রহমান নগর এলাকার আলাউদ্দিনের ছেরে নূর আলম (৩৫), গোদনাইল এলাকার হাসেম মোল্লাহর ছেলে আবু বক্কর (৪৫), শিমরাইল এলাকার বদর উদ্দিনের ছেলে জজ মিয়া (৪৮), আটি হাউজিং এলাকার বাদশা (৩৫), গোদনাইল নয়া পাড়া এলাকার সামসুল হকের ছেলে সালাউদ্দিন (৪৮), গোদনাইল এলাকার (মতির ভাগিনা) মামুন, মিজমিজির কান্দারপাড়া এলাকার রহিম মেম্বারের জামাই মুক্তার হোসেন (৪০), সিদ্ধিরগঞ্জ মিজমিজি এলাকার (টাইগার ফারুকের ছোট ভাই) জসিম (৩৫), সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকার আল আমিন জহির সাহেবের বাড়ির ভাড়াটিয়া রেদোয়ান (৩৫), সিদ্ধিরগঞ্জ মিজমিজি পূর্বপাড়া মহিউদ্দিনের বাড়ির ভাড়াটিয়া সোহেল (২৬), সিদ্ধিরগঞ্জ বাতেনপাড়া এলাকার মজিদ মাতবর মোশারফ ছেলে মাতবর (৪২), সিদ্ধিরগঞ্জ মিজমিজি বাতেন পাড়া এলাকার শফিকুল ইসলাম ছেলে শান্ত (২১), ফরিদপুর সাতলা বাহিরদি এলাকার বাহাদুর খানের ছেলে হাফিজুর খান (২৮), সিদ্ধিরগঞ্জ মিজমিজি বাতেনপাড়া এলাকার মজিবরের ছেলে আল আমিন (২৭), সিদ্ধিরগঞ্জ মিজমিজি বাতেন পাড়া এলাকার বাদল মেম্বারের বাড়ি আবুল কালাম আজাত (২২), গিয়াস উদ্দিন মাঝির ছেলে কবির (৩৫), পাগলাবাড়ি মোবাশ্বের এন্টারপ্রাইজের মালিক মোশারফ (৩৮), সিদ্ধিরগঞ্জ মিজমিজি এলাকাল মনার ছেলে সাজু (৪০), পাগলাবাড়ি এলাকার জাহাঙ্গীরের ছেলে কাজল (২৩), আল আমির নগর এলাকার খলিলের ছেলে আলমগীর (৩৫), আলআমিন নগর এলাকার তারা মিয়ার ছেলে আসহাক (৪৫), আল আমিন নগর এলাকার আলাউদ্দিন ছেলে নূর কালাম (৩৮), মিজমিজি এলাকার নূর ইসলাম ছেলে আজিজ (৪২), পাইনাদী নুতন ব্রীজ এলাকার উলিউল্লাহ ছেলে এনায়েত (৩৮), মিজমিজি পূর্ব সিআই এলাকার মনসুর আলি ছেলে কবির হোসেন ওরফে মোটা কবির (৪৫), মিজমিজি এলাকার টাইগার ফারুক, পাইনাদী মধ্যপাড়া এলাকার ইমনের ছেলে রাজ্জাক (৪০), মিজমিজি এলাকার আনোয়ার হোসেন ওরফে বালু আনোয়ার (৫০), পাইনাদী মধ্যপাড়া এলাকার ওমর আলী ছেলে আলী (৩৫), পাইনাদী মধ্য পারা এলাকার ই¯্রাফিত ছেলে সোহাগ (৩২), বাতেন পাড়া এলাকার আলী ছেলে অলি উল্লাহ (৫৫), বাতেন পাড়া এলাকার আয়েত আলী ছেলে নাসির (৩৮), হিরাঝিল এলাকার আফির উদ্দিন ছেলে সাইফুল (৩৮), পাইনাদী এলাকার জয়নাল আবেদীন (৪৫), পাইনাদী এলাকার সুফিয়ান (৪০), আহসান উল্লাহ মার্কেট জুয়েলারী ব্যবসায়ী রানা (৩৫), মিজমিজি এলাকার চান, বাদশা ছেলে রমজান (৩৫), রাজ্জাক দালাল ছেলে সুমন (২৮), জয়নাল আবেদীন ছেলে কাউসার (৩৫), শিমরাইল এলাকার (ফারুক কাউন্সিলারের সহযোগী) শামীম (৩০), রসুলবাগ এলাকার (ফারুক কাউন্সিলারের সহযোগী) ইয়াসিন, কদমতলী মধ্যপাড়া সমির পাড়া এলাকার শাহ আলম মানিকের ছেলে শাহজাহান কালু (৫২), জাফর (৩৫), গোদনাইল এলাকার হেলাল উদ্দিন মোল্লাহ ছেলে খোকন মোল্লাহ (৫০), কদমতলী কলেজ পাড়া এলাকার তালেব আলী ছেলে বাদশা (৪৫), জব্বার শেখের ছেলে মজিবর (৫৫), এসও রোড এলাকার আরমান (৪০), কদমতী নয়া পাড়া এলাকার জাহাঙ্গীর পেদা ছেলে জুয়েল (২২), গোদনাইল এসও এলাকার জাফরউদ্দিন ছেলে আনোয়ার হোসেন (৫০), গোদনাইল এসও এলাকার সাইজ্জুদ্দিন ছেলে মারুফ (৩৫), গোদনাইল এলাকার হাশেম মোল্লাহ ছেলে আবু বক্কর (৪২), এসও এলাকার ফিরোজ মিয়া ছেলে ফয়সাল ফালু (২৬), কদমতলী এলাকার মুক্তিযোদ্ধা সুন্দর আলীর ছেলে মো. বাদল মিয়া (২৫), পূর্ব মুন্সিপাড়া এলাকার আহাম্মদ হোসেনের ছেলে মো. মাঈনুদ্দিন, কলাবাগান এলাকার নূরু মিয়ার ছেলে মো. রাসেল (৩৫), কলাবাগান এলাকার মৃত আব্দুর রউফের ছেলে ফারুক মুন্সি (২৫), আইলপাড়ার মাঈনুদ্দিনের ছেলে মানিক মাষ্টার (৪৫), কদমতলী মধ্যপাড়া এলাকার শাহজাহান (৫২), কদমতলী এলাকার মো. নজরুল ইসলাম (৫৫), সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মো. নূর নবী (৪২), সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মৃত মহতাব উদ্দিনের ছেলে মো. রেজাউল করিম (৪০), মিজমিজি দক্ষিনপাড়া এলাকার সাইফুল (৩৫), মিজমিজি এলাকার মৃত নবী হোসেনের ছেলে মাসুদ (৪০), মিজমিজি দক্ষিনপাড়া এলাকার ছানা উল্লাহ (৪৫), মিজমিজি পশ্চিম পাড়া এলাকার আশিক (৩৮), মিজমিজি দক্ষিনপাড়া এলাকার রাসেল (৩২), মিজমিজি পূর্বপাড়া এলাকার মৃত কফু মুন্সির ছেলে গিয়াস উদ্দিন (৪৫), চিটাগাং রোডের মৃত আ. রহমানের ছেলে আবুল মুন্সি (৪৫), জালকুড়ির ইমলাকের ছেলে মো. মনির হোসেন (৪২), জালকুড়ির ইন্নত আলীর ছেলে দেলোয়ার হোসেন (৪০) ও মো. আলাউদ্দিন (৪৫), মিজমিজি দক্ষিনপাড়া এলাকার আতাউর (৪০), গোদনাইল এসও এলাকার সাদ্দাম (৩২), মিজমিজি দক্ষিনপাড়া এলাকার ইদ্রিস মিয়ার ছেলে ইকবাল (৪০), গোদনাইল এলাকার মৃত সামছুলের ছেলে সালাউদ্দিন (৩৫), গোদনাইল বাস স্ট্যান্ড এলাকার চেয়ারম্যান শাহ আলমের ছেলে মো. শাহ জালাল (৪০), মিতালী মার্কেটের নজরুল ইসলাম মঞ্জু (৩৫), মিজমিজি মাদ্রাসা রোড এলাকার পলাশ (৩৮), মিতালী মার্কেটের শিপন (৩৮), সিদ্ধিরগঞ্জ থানার নূর ইসলামের ছেলে সোহেল (৩৫) ও শাহিন (৩২)।

প্রসঙ্গত, শনিবার সকাল ৮টায় সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি আলামিন নগর এলাকায় নিজের মেয়েকে দেখতে গিয়ে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনির শিকার হন বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী সিরাজ (৩০)। পরে খবর পেয়ে পুলিশ মুমূর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনার দুই ঘন্টা পর শারমিন নামে এক মানসিক ভারসাম্যহীন নারীকে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি দেয় স্থানীয়রা। পুলিশ খবর পেয়ে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে প্রাণে বেঁচে যান তিনি।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ