সোমবার ১৭ জুন, ২০১৯

চাষাড়ায় বিআরটিসি কাউন্টার ভাঙচুর, মেট্রো হলের কাউন্টার বন্ধ

শনিবার, ২৫ মে ২০১৯, ১৭:৪৩

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: শুরুতেই ক্ষমতাসীন পরিবহন নেতাদের রোষানলে পড়েছে সরকার নিয়ন্ত্রিত পরিবহন সংস্থা বিআরটিসি। ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে ১৫টি এসি বাস চালু করে প্রথম দিন থেকেই চাষাড়া কাউন্টারে বাধা পেয়ে আসছিল বিআরটিসি। গত শুক্রবার (২৪ মে) চাষাড়া কাউন্টারে ভাঙচুর করে বাস মালিক সমিতির লোকজন। শনিবার (২৫ মে) চাষাড়া কাউন্টারে ফের ভাঙচুর চালানো হয়। এ সময় কাউন্টারে থাকা লোকজনকে মারধর করা হয়েছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। এদিকে মেট্রো হলের সামনের কাউন্টারটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

দীর্ঘ দুই বছর পর গত ২২ মে নারায়ণগঞ্জ-ঢাকা রুটে বিআরটিসি’র এসি বাস উদ্বোধন করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। চালু হবার দুইদিনের মাথায় বাধার সম্মুখীন হয় সরকার নিয়ন্ত্রিত এ সার্ভিসটি। শনিবার সকাল থেকে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের চাষাড়ায় বেসরকারি এসি বাস ‘শীতল’ ও নন এসি বাস ‘হিমাচল’ পরিবহনের কাউন্টারের মাঝামাঝি স্থানে অস্থাায়ী কাউন্টার বসানোর চেষ্টা করা হয়। এ সময় বাস ও মিনিবাস পরিবহন মালিক সমিতির লোকজন এসে বাধা দেয়।

নারায়ণগঞ্জের বিআরটিসি ডিপো ম্যানেজার জেডএ কামরুজ্জামান অভিযোগ করেন, শনিবার সকালে কয়েক দফা কাউন্টার বসানোর চেষ্টা করা হলেও বাস ও মিনিবাস পরিবহন মালিক সমিতির লোকজন এসে বাধা দেয়। জিলানী ও দিদারসহ আরো কয়েকজন এসে অস্থায়ী কাউন্টারের ছাতা উপড়ে ফেলে ও টেবিল ভাঙচুর করে। এছাড়া কাউন্টারে থাকা টিকেট বিক্রির লোকজনকেও মারধর করে। এর আগে শুক্রবারও একইভাবে কয়েক দফা বাধা দেওয়া হয়।’

এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি মোক্তার হোসেন জানান, ‘চাষাড়ায় আগে বিআরটিসির যে স্থানে কাউন্টার ছিল এবার সেখানে তারা বসায়নি। বরং তারা এমন এক স্থানে কাউন্টার রেখে বাস পার্কিং করছিল যাতে যানজট সৃষ্টি ও অন্য বাসগুলোর সমস্যা হচ্ছিল। সে কারণে আমাদের সকল পরিবহনের লোকজন গিয়ে বিআরটিসির লোকজনদের অনুরোধ করেছে যেন তাদের আগের কাউন্টারের স্থলেই নতুন করে কাউন্টার বসানো হউক। কিন্তু সেটা করা হয়নি।’

জেলা ট্রাফিক পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার সালেহ আহমেদ জানান, ‘বিআরটিসি প্রথমে যে স্থানে কাউন্টার বসাতে চেয়েছিল সেখানে বসালে যানজট হতো। পরে তাদের আমরা অন্যত্র কাউন্টার বসানোর পরামর্শ দিয়েছিলাম। নতুন করে মারধর ও বা উচ্ছেদে বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ কিছু জানায়নি।’

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ