শুক্রবার ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৯

চাঁদার দাবিতে ব্যবসায়ীকে তুলে নিয়ে মারধর করলেন কাউন্সিলর আলা

সোমবার, ২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৯:৪৬

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সিদ্ধিরগঞ্জে বিশ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে ইউসুফ নামে এক ব্যবসায়ীকে তুলে নিয়ে কাউন্সিলর অফিসে নিয়ে গিয়ে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে নাসিকের ৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলী হোসেন আলার বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগও দায়ের করেছেন ওই ব্যবসায়ী।

ব্যবসায়ী ইউসুফ অভিযোগ করে বলেন, আদমজী ইপিজেড অভ্যন্তরের টিএনএস বাটন কারখানা কর্তৃপক্ষ কোটেশেন আহবান করলে তিনি কোটেশন দাখিল করে কাজ পান। তিনি সেখানে বৈধভাবে ব্যবসা করে আসছিলেন। সোমবার (২ ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টায় কারখানার সামনে থেকে ৩টি মোটর সাইকেলে করে শাহজাহান, হারুন, নজরুলসহ কাউন্সিলরের লোকজন তাকে জোর করে তাকে তুলে নিয়ে যায়। পরে কাউন্সিলরের কার্যালয়ে নিয়ে গিয়ে ২০ লাখ চাঁদা দাবি করে তাকে মারধর করেন কাউন্সিলর আলী হোসেনসহ তার লোকজন। এ সময় তার মোবাইল ফোনটিও ছিনিয়ে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেন ওই ব্যবসায়ী।

তবে বিষয়টি অস্বীকার করে মুঠোফোনে অভিযুক্ত নাসিক ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আলী হোসেন আলা বলেন, আমি দীর্ঘদিন যাবৎ আদমজী ইপিজেড অভ্যন্তরের টিএনএস বাটন কারখানায় ব্যবসা করে আসছি। কয়েকদিন পূর্বে ইউসুফ ওই কারখানায় ব্যবসা করার জন্য কোটেশন দিয়ে আমার ব্যবসা নিয়ে যেতে চাচ্ছে। তাই আমার ছেলেরা একটু ক্ষ্যাপা ছিল। কিন্তু তাকে মারধর করা হয়নি। তাকে বুঝানোর জন্য আমার লোকজন নিয়ে এসেছিল। আমি নিজে উপস্থিত ছিলাম সেখানে তার গায়ে একটা টোকাও দেয়া হয় নাই।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুল ফারুক বলেন, এক ব্যবসায়ী লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ