বুধবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৮

গলাচিপায় পটকার শব্দ হলেও শান্ত নগরী, আইনশৃংখলা বাহিনীর টহল

বুধবার, ১০ অক্টোবর ২০১৮, ১৫:৪৭

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় ঘোষনার পর শহরের প্রধান সড়ক বঙ্গবন্ধু সড়কের গলাচিপা এলাকায় পর পর দুটি শব্দ পেয়েছেন ওই এলাকার লোকজন। কেউ বলেছেন রিকশার টায়ার ফাটার শব্দ কেউ বলেছেন পটকা ফুটার শব্দ। আবার পুলিশও নিশ্চিত হতে পারেনি পটকা না টায়ার ফাটার শব্দ। তবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা। এদিকে নগরীর জীবনযাত্রা স্বাভাবিক রয়েছে। শান্ত নগরীতে আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের টহল দিতে দেখা গেছে।

বুধবার (১০ অক্টোবর) সরেজমিনে দুপুর ১টায় বঙ্গবন্ধু সড়কের গলাচিপা মোড় এলাকায় গিলে দেখা যায় নিত্যদিনের মতো স্বাভাবিক পরিস্থিতি।

গলাচিপা মোড়ে অবস্থিত চা দোকানী বলেন, ‘মোড়ে তো কিছু হয়নি। বেলা এগারোটার সময় পটকা ফুটানোর মতো ২টা শব্দ শুনছি। বোমা বা অন্য কিছুর কথা তো শুনি নাই। শব্দটা তো আরো এগিয়ে গিয়ে বঙ্গবন্ধু সড়কে।’

গলাচিপা থেকে এগিয়ে বসে ছিলেন ডাব বিক্রেতা মিজানুর। সকাল থেকেই ডাব বিক্রি করছেন তিনি। মিজানুর বলেন, ‘সকাল থেকেই তো এখানে আছি বোমা ফোটার কোনো ঘটনা বা কথা তো শুনি নাই। কিছু তো দেখলামও না। তবে বেলা সাড়ে ১২টায় দুইটা রিকশার টায়ার ফাটার শব্দ শুনেছি এবং দেখেছি।’

বঙ্গবন্ধু সড়কে অবস্থিত মোহামেডান ক্লাবের সন্নিকটে ফ্লেক্সিলোডের দোকানী বলেন, ‘রিকশার টায়ার ফাটার মতো শব্দ শুনেছিলাম কিন্তু তা বোমা কিনা জানি না। পুলিশ আসতেও দেখেছি কিন্তু তা টহল দেয়ার মতো। বোমা ফাটার মতো ঘটনা ঘটলে তো শুনতাম।’

এ বিষয়ে সদর মডেল থানার ওসি কামরুল ইসলাম বলেন, বোমা না পটকা ফুটেছে তা এখনো নিশ্চিত হতে পারিনি। তবে খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে আসলে কি ফুটেছে। যদিও ঘটনাস্থলের আশপাশের লোকজন নাকি বলেছে কেউ শুনেছে পটকা ফুটেছে কেউ বলেছে টায়ার ফেটেছে। তাছাড়া প্রাথমিকভাবে বোমা বিস্ফোরণ হয়েছে এমনটার সত্যতা পাওয়া যায়নি।

এবিষয়ে র‌্যাব-১১ নারায়ণগঞ্জ ক্যাম্পের এএসপি বাবুল আখতার বলেন, গলাচিপা এলাকায় বোমা বিস্ফোরণের এমন কোন খবর আমরা পাইনি।

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ