শুক্রবার ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

খালেদা জিয়াকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে সরকার: সাখাওয়াত

বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৯:৩৫

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন খান বলেছেন, ‘বেগম জিয়া সাধারণ আইনের অধিকারও পাচ্ছে না। সরকার আদালতের উপরে বন্দুক রেখে কারাগারে বেগম খালেদা জিয়াকে তিলে তিলে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে।’

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে শহরের নারায়ণগঞ্জ ক্লাব সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু সড়কে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘আপনারা দেখছেন বাংলাদেশে আজকের গণতন্ত্র। জনগণ রাজপথে এসে একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রীর মুক্তির দাবি করবে সেটার চাওয়ার অধিকারও আজকে হরণ করা হচ্ছে। এদেশের গণতন্ত্র আজকে অবরুদ্ধ। মানুষকে মানুষের কথা বলতে দেওয়া হচ্ছে।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘কোন অনুমতি না নিয়ে সরকারি দল সারা নারায়ণগঞ্জকে অবরুদ্ধ করে মিটিং-মিছিল করে। অথচ আমাদের জাতীয় কর্মসূচি পালন করতে দেওয়া হয় না। বিএনপিসহ বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে যেসব মামলা দিয়ে অবরুদ্ধ রাখা হয়েছে। আজকে আমাদের কথা বলতে দেওয়া হয় না, সভা-সমাবেশ করতে দেওয়া হয় না। শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি হচ্ছে মানববন্ধন। কিন্তু সেটাও আমাদের করতে দেওয়া হচ্ছে না, আমাদের অবরুদ্ধ করে রাখা হচ্ছে।’

এ সময় তিনি দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

সাখাওয়াত হোসেন বলেন, ‘দেশে একটি গণতান্ত্রিক পরিবেশ দাবি করছি। একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি জানাই। ৩০ ডিসেম্বর যে নির্বাচন হয়েছে সেটা কোন নির্বাচন নয়। সেটা প্রশাসনের মাধ্যমে একপেশে নির্বাচন হয়েছে। আগের রাতে নির্বাচন হয়েছে। এই নির্বাচন বাতিলের দাবি জানাই।’

মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন খানের নেতৃত্বে মহানগর বিএনপির ব্যানারে কেন্দ্র ঘোষিত এ কর্মসূচি পালিত হয়। এদিকে সকালে মহানগর বিএনপির আরেক সহ সভাপতি এড. জাকির হোসেনের সভাপতিত্বে একই ব্যানারে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে সাখাওয়াত হোসেনের নেতৃত্বে মানববন্ধন কর্মসূচি বিকেল ৪টায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও পুলিশী বাধায় তা শুরু করতে পারেনি নেতৃবৃন্দ। প্রায় এক ঘন্টা ক্লাব মার্কেটের সামনে নেতাকর্মীরা অবরুদ্ধ থাকার পর বিকেল ৫টার দিকে কয়েকজন নেতাকর্মীকে নিয়ে মানববন্ধন শুরু হয়। বাকি নেতাকর্মীদের মার্কেটের ভেতরেই অবরুদ্ধ করে রাখে পুলিশ। পরে পুলিশের বেঁধে দেওয়া ৫ মিনিট সময়ের মধ্যে কেবল সাখাওয়াত হোসেন খানের বক্তৃতার মাধ্যমে শেষ হয় এ মানববন্ধন।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, বন্দর থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি মো. আমানউদ্দিন আমান, বিএনপি নেতা মো. মনির হোসেন খান, হাজী গোলজার হোসেন খান, জেলা যুবদলের সহ সভাপতি পারভেজ মল্লিক, যুগ্ম সম্পাদক শাহিন আহমেদ, মহানগর শ্রমিক দলের আহবায়ক এসএম আসলাম, যুগ্ম আহবায়ক লুৎফর রহমান মন্টু, মহানগর তাতী দলের আহবায়ক মীর আলমগীর, সদস্য সচিব ইকবাল হোসেন, জেলা মৎসজীবী দলের সভাপতি এড. এইচএম আনোয়ার প্রধান, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, মহানগর মৎসজীবী দলের আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম রতন, সদস্য সচিব সাগর প্রধান, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক রাকিব হাসান রাজ, মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক ইব্রাহীম বাবু প্রমুখ।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ