রবিবার ১৬ মে, ২০২১

খানপুরে সেন্ট্রাল ক্লিনিকে প্রসূতির মৃত্যু, ভাঙচুর

মঙ্গলবার, ১৬ মার্চ ২০২১, ১৯:৩০

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: শহরের খানপুর এলাকার সেন্ট্রাল জেনা‌রেল হাসপাতা‌লে সন্তান প্রসবের পর ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে অভিযোগে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে৷ সোমবার (১৫ মার্চ) রাত ১০টার দি‌কে হাসপাতাল ঘেরাও করে বিক্ষোভ ও ভাংচুর চালায় প্রসূতির স্বজন ও এলাকাবাসী৷

নিহত নারীর নাম পান্না বেগম (২৮)৷ তিনি শহরের ডনচেম্বার এলাকার বাসিন্দা ফল ব্যবসায়ী জিসান আহমেদের স্ত্রী৷ কন্যা সন্তান জন্ম দেওয়ার কিছুক্ষণ পর একটি ইনজেকশন দেওয়া হলে তার মৃত্যু হয় বলে অভিযোগ প্রসূতির স্বজনদের৷

প্রসূতির স্বামী জিসান আহমেদ জানান, সোমবার দুপুর বারোটার দিকে খানপুর এলাকার জোড়া ট্যাংকি সংলগ্ন সেন্ট্রাল জেনারেল হাসপাতালে তার স্ত্রীকে ভর্তি করানো হয়। বিকেল তিনটার দিকে সরকারি হাসপাতাল নারায়ণগঞ্জ ৩শ’ শয্যা হাসপাতালের চিকিৎসক (গাইনী) মিশকাত জাহান হেনার তত্ত্বাবধানে অস্ত্রোপচারের (সিজার) মাধ্যমে একটি কন্যা সন্তান জন্ম দেন প্রসূতি। পরে পান্না বেগমের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী তার শরীরে একটি ইঞ্জেকশন পুশ ক‌রে কর্তব্যরত নার্স। এতে তার অবস্থা আরো খারাপ হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। তবে সেখানে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা দেন।

প্রসূতির মৃত্যুর খবর পেয়ে স্বজনরা ও স্থানীয় এলাকাবাসী হাসপাতালে ঢুকে হৈ-চৈ শুরু করেন৷ এক পর্যায়ে তারা হাসপাতালের আসবাবপত্র ভাঙচুর চালান৷ এ সময় হাসপাতালের দায়িত্বরত কর্তৃপক্ষ হাসপাতাল ছেড়ে চলে যায়৷ খবর পেয়ে সদর মডেল থানা পুলিশের এক‌টি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। সকাল পর্যন্ত এ ঘটনায় লিখিত কোনো অভিযোগ থানায় দেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ৷

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ