মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

প্রশ্ন উঠেছে কে ক্ষমতায় বড় এমপি নাকি পুলিশ: রফিউর রাব্বি

রবিবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:৫০

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক ও ত্বকীর পিতা রফিউর রাব্বি বলেছেন, ‘ত্বকীর হত্যাকারীরা ক্ষিপ্ত হয়েছে। ক্ষিপ্ত হয়েছে এই কারণে যে, তাদের ধারণা হচ্ছে তারা খুন করবে, সন্ত্রাস করবে, মাদক ব্যবসা করবে আইন তাদেরকে ধরবে কেন! যখন তাদের দু-চার জায়গায় ধাওয়া করছে তখনই তারা ক্ষিপ্ত হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘কিসের সরকার এটা। পুলিশ তাদের এমপি বানালো, নির্বাচনে পাশ করালো। পুলিশ যদি আগের রাতে এই ভূমিকা না নেয় তাহলে তাদের অনেকেই ক্ষমতায় আসতে পারতো না। আজ আমাদের কাছে প্রশ্ন উঠে এসেছে, আসলে কে ক্ষমতায় বড়? এমপি, নাকি পুলিশ? এইটা একটি রাষ্ট্র ব্যবস্থার জন্য ভয়াবহ আলামত। সেনাবাহিনী, র‌্যাব, পুলিশ দিয়ে রাষ্ট্র পরিচালনা, তাদের ঘাড়ে অস্ত্র রেখে, তাদের ভর করে ক্ষমতায় টিকে থাকা যাবে না।’

রবিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় নগরীর আলী আহাম্মদ চুনকা পাঠাগার ও মিলনায়তনে নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে ত্বকী হত্যার বিচারের দাবিতে মোমবাতি প্রজ্জলন কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ‘আজ ত্বকী হত্যার সাড়ে ৬ বছর। আমরা দেখলাম, ত্বকীর ঘাতক আজমেরী ওসমান কালিরবাজারের এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৬৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেছে এবং তাকে মারধর করেছে। এর জন্য পুলিশ তাকে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চালাচ্ছে, খুঁজে বেড়াচ্ছে। অন্যদিকে ত্বকী হত্যার মতো গুরুত্ব অভিযোগ থাকার পরও তাকে ধরা হচ্ছে না। আমরা ত্বকী হত্যার মূল অভিযুক্ত আজমেরী ওসমানকে গ্রেপ্তারের এবং ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি নেয়ার দাবি জানাচ্ছি। আমরা জানি, আজমেরী ওসমানের জবানবন্দিতেই শামীম ওসমানসহ আরো বিভিন্ন নাম প্রকাশিত হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আজ নারায়ণগঞ্জের তরুণ সাংবাদিক শাহরিয়া শুভ্রকে হত্যা করা হয়েছে। আজ তার ২ বছর পূর্ণ হলো। এই দুই বছরে তার মামলার কোনো অগ্রগতি নেই। আমরা এই হত্যা মামলার সুষ্ঠবিচারের দাবি জানাচ্ছি।’

নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি ভবানী শংকর রায়ের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শাহীন মাহমুদের সঞ্চালনায় মোমবাতি প্রজ্জলন কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মাসুম, নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, খেলাঘর আসরের সভাপতি রথীন চক্রবর্তী, জেলা সিপিবির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম, ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক হিমাংশু সাহা, ন্যাপের সাধারণ সম্পাদক এড. আওলাদ হোসেন, গণসংহতি আন্দোলনের জেলা সমন্বয়কারী তরিকুল সুজন, সমমনার সভাপতি দুলাল সাহা, গার্মেন্ট শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি বিপ্লব, সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক সভাপতি জাহিদুল হক দিপু প্রমুখ।

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ