শনিবার ২৩ নভেম্বর, ২০১৯

কাদা জল মাড়িয়ে চলতে হয় ৭ গ্রামবাসীর

বুধবার, ৩ জুলাই ২০১৯, ১৯:৩১

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সোনারগাঁয়ের মালিপাড়া থেকে বশিরগাঁও সড়কে কাদা জল মাড়িয়ে চলতে হয় ওই এলাকার ৭ গ্রামবাসীর। একটু বৃষ্টি হলেই চলতে গিয়ে সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়তে হয় স্কুল শিক্ষার্থী ও বয়স্কদের। দীর্ঘদিন ধরে সড়কটি পাকাকরণের জন্য দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী। ওই সড়কের একাংশ ইট বিছানো থাকলেও বেশিরভাগ অংশই কাঁচা রয়ে গেছে। এ সড়কটি ভেঙ্গে গেলে স্থানীয় সমাজ সেবক আল মুজাহিদ মল্লিক নিজ খরচে সংস্কার করে চলাচলের উপযোগী করে তোলেন বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

জানা যায়, উপজেলার মালিপাড়া থেকে বশিরগাঁও সড়কে বশিরগাঁও, মিরেরবাগ, মালিপাড়া,জামপুর, মাঝেরচর, প্রভাকরদী, কাঠাবো গ্রামের প্রায় ৪-৫ হাজার লোক চলাচল করে। এ সড়কটি কাঁচা থাকার কারনে চলাচলে তাদের দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এ সড়কে চলতে গিয়ে কাদা জলে আঁছড়ে পড়ে শিক্ষার্থীসহ ১০ জন আহত হয়েছ। এ সড়ক দিয়ে এলাকাবাসীর কষ্ট করে বশিরগাঁও কবরস্থানের লাশ দাফনের জন্য নিয়ে যেতে হয়। এ সড়কটি সংস্কার করে পাকাকরণের জন্য দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

সরেজমিন ওই সড়কে দেখা যায়, এ সড়কের পাশে বশিরগাঁও ঈদগাহ ও করবস্থান রয়েছে। শিক্ষার্থীরা এ সড়ক দিয়ে স্কুলে যাচ্ছে। অনেক স্থানে বৃষ্টির পানি জমে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

বশিরগাঁও গ্রামের আবুল হাসেম ও জোবায়দা বেগম জানান, এ সড়ক দিয়ে ৭ গ্রামের ৫ থেকে ৬ হাজার লোকজন চলাচল করে। এ সড়কটি মেরামত করে পাকা করলে এ এলাকার লোকজনের দুর্ভোগ লাঘব হবে। দ্রুত এ সড়কটি পাকা করে এলাকার লোকজনের উপকার করার জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে দাবী জানিয়েছেন।

স্থানীয় সমাজ সেবক আল মুজাহিদ মল্লিক জানান, বশিরগাঁওসহ ৭-৮টি গ্রামের লোকজনের চলাচলের সুবিধার্থে এ সড়কটি মাঝে মধ্যে নিজ খরচে সংস্কার করে চলাচলের উপযোগী করা হয়। তবে এলাকাবাসীর স্বার্থে সড়কটি পাকাকরণ দরকার।

সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আহসান হাবিব টিপু জানান, এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা পূরণের জন্য সড়কটি পাকাকরণ করতে হবে। এ সড়কটি পাকা হলে এ অঞ্চলের মানুষের কৃষি পন্য সহজে বাজারে বিক্রি করতে পারবে।

সোনারগাঁ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. সাইদুল ইসলাম বলেন, সড়কটি পরিদর্শন করে প্রকল্পের মাধ্যমে সড়কটি সংস্কার করার দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ