বুধবার ২৭ মে, ২০২০

কাকে ভয় দেখাতে চান: শামীম ওসমানকে প্রশ্ন আইভীর

শুক্রবার, ৬ মার্চ ২০২০, ২০:১৫

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: শামীম ওসমানের অস্ত্র নিয়ে দেয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে নাসিক মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি বলতে পারে পুলিশের চেয়েও বেশি অস্ত্র তার কাছে থাকে। তিনি এতবছর পর এসে কি বুঝাতে চাচ্ছেন? কাকে ভয় দেখাতে চাচ্ছেন? নারায়ণগঞ্জে নতুন করে আবার কিসের ষড়যন্ত্র করছেন? একসাথে অনেকজনকে হত্যা করতে চাচ্ছেন? নাকি নারায়ণগঞ্জের ডিসি-এসপি এবং প্রশাসনকে ভয় দেখিয়ে আবার রামরাজত্ব কায়েম করতে চাচ্ছেন? কিন্তু আপনি যেটাই করতে চান না কেন, কোনটাই আপনি করতে পারবেন না।’

শুক্রবার (৬ মার্চ) বিকেলে নগরের দেওভোগে শেখ রাসেল পার্কের মুক্তমঞ্চে মেধাবী কিশোর তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী হত্যার সাত বছর পূর্তিতে ‘শিশু সমাবেশ ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা’র পুরস্কার বিতরণী ও আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মেয়র আইভী বলেন, ‘ত্বকীর আগে নারায়ণগঞ্জে কতো হত্যাকান্ড যে হয়েছে তা শুধু এই শহরের মানুষ না সারা বাংলাদেশই জানে। সারা বাংলাদেশের মানুষ নারায়ণগঞ্জকে সন্ত্রাসের জনপদ হিসেবে জানতো। কারণ একটি পরিবার পরপর বহু হত্যাকান্ড সংঘটিত করেছে। তাদের কোনো বিচার হয় নাই বলেই ত্বকী হত্যাকান্ড হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ত্বকী হত্যাকান্ডের পর আমরা একত্রে প্রতিবাদ করেছি বলেই এরপর সে ধরণের হত্যাকান্ড করতে এই ঘাতকরা তেমন সাহস পায়নি। তাই আমরা ত্বকী হত্যার বিচার না হওয়া পর্যন্ত বিচার চেয়েই যাবো। এই ঘাতক পরিবারকে আমরা প্রত্যাখ্যান করবো। এই ধরনের আর কোনো হত্যাকান্ড আমরা আর হতে দেবো না। এই ধরনের উদ্ধ্যতপূর্ণ আচরণ আর হয় তাহলে মিছিল-মিটিং নয় জনসাধারণকে নিয়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা অবশ্যই নেবো।’

নাসিক মেয়র বলেন, ‘আমি নারায়ণগঞ্জে বেঁচে থাকা অবধি এই শহরের আনাচে-কানাচে প্রতিটি মানুষকে নিয়ে আপনার বিরুদ্ধে রুখে দাড়াবো। আপনি ওই অস্ত্রের ভয় আমাদের দেখাবেন না। আপনার বহু অস্ত্র আমরা দেখেছি। আপনি প্রশাসনকে ভয় দেখাতে চান? একজন কনস্টেবলও আপনাকে ভয় পায় বলে আমার মনে হয় না। এই শহরের একটা রিকশাওয়ালা, একজন ছোট বাচ্চাও ভয় পায় বলে আমার মনে হয় না। সুতরাং জুজুর ভয় দেখাবেন না। আপনি গডফাদার? ওই ভয় আমরা পাই না।’

শামীম ওসমানকে ‘গডফাদার’ উল্লেখ করে সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, ‘আপনাকে নাকি দুটো পত্রিকা গডফাদার বানিয়েছে। কিন্তু আপনি নিজেই তো প্রমাণ করলেন- আপনার কাছে হাজার হাজার অস্ত্র আপনার, যে অস্ত্র পুলিশের কাছেও নাই। এই অস্ত্র আপনি কোত্থেকে পান? তাহলে আপনি তো অবশ্যই গডফাদার। তাহলে এতোদিন নারায়ণগঞ্জের মানুষ বলেছে, প্রচুর হত্যাকান্ডের সাথে আপনার পরিবার জড়িত। তাহলে সেটাই সত্য।’

এ সময় মেয়র আইভী ত্বকী, চঞ্চল, আশিক, ভুলুসহ সকল হত্যাকান্ডের বিচার চেয়ে যাবো। তিনি বলেন, আমরা বিচার চেয়ে যাবো এবং আপনাকে কোনো ধরনের অপকর্ম করতে দেবো না। আপনার সন্তান, আপনার ভাই, ভাতিজা যত কথাই বলুক না কেন, আমরা আপনাকে ভয় পাই না।

সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বির সভাপতিত্বে ও নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক সভাপতি জিয়াউল ইসলামের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন মুক্তিযুদ্ধ যাদুঘরের ট্রাস্ট্রি মফিদুল হক, নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মাসুম, নারায়ণগঞ্জ চারুকলা ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ শামসুল আলম আজাদ, ত্বকী মঞ্চের সদস্য সচিব কবি হালিম আজাদ প্রমুখ।

আলোচনা শেষে পরে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এর আগে সকালে ত্বকী হত্যাকান্ডের সাত বছর পূর্তিতে নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার পুরাতন বন্দর এলাকায় কাদরিয়া ভান্ডার সিরাজ শাহ্ আস্তানায় কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ত্বকীর পরিবারসহ নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন, রাজনৈতিক-সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এ সময় নিহতের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল করা হয়।

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ