শুক্রবার ২৯ মে, ২০২০

কাঁচপুরে লকডাউন অমান্যের কথা বলে দোকান লুট, মারধর

বৃহস্পতিবার, ২৩ এপ্রিল ২০২০, ১৯:০৩

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের কাঁচপুরে লকডাউন অমান্যের কথা বলে দোকানপাট ভাঙচুর ও টাকা-পয়সা লুটের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কাঁচপুরের উত্তরপাড়া ওমর আলী স্কুলের পেছনে বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, সাড়ে ১২টার দিকে দুটি গাড়ি এসে থামে। পোশাকধারী একজন পুলিশসহ ৫-৬ জনের একটি দল গাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে মুদির দোকানগুলোতে ভাঙচুর চালায় এবং লোকজনকে মারধর করতে থাকে। পরে দোকানের ক্যাশ থেকে টাকা পয়সা নিয়ে চলে যায়। এ সময় বাড়িঘরে ঢুকেও হইচই ও ভাঙচুর চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। দুই দিন পূর্বেও পুলিশ পরিচয়ে এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে দাবি তাদের।

মারধর ও লুটপাটের শিকার ওই এলাকার সায়মা স্টোরের মালিক গিয়াসউদ্দিন বলেন, ‘একজন ছিল পুলিশের পোশাকে। তারা এসেই মারপিট ও ধুমধাম ভাঙচুর শুরু করে। একজনের হাত ভাইঙ্গা ফেলছে, আরেকজনের পায়ে বাড়ি দিছে। এমন অনেকরে পিটাইছে। পরে দোকানের ক্যাশ থেকে টাকাপয়সা নিয়ে চলে গেছে। দুপুর দুইটা পর্যন্ত তো মুদির দোকান খোলা রাখার কথা কিন্তু তখন একটাও বাজে নাই।’

স্থানীয় যুবক রিফাত হোসেন বলেন, আমরা ৯৯৯ এ কল করেছিলাম পরে থানায় যোগাযোগের কথা বলেছে। কিছু লোক থানায় গেছে। এছাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও স্থানীয় নারী মেম্বারকেও বিষয়টা জানানো হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে কাচপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন মুঠোফোনে বলেন, আমাকে এলাকাবাসীর একজন ফোন দিয়ে বিষয়টি জানিয়েছে। কিছু লোকজন এসে নাকি দোকানপাট ভাঙচুর করেছে, ক্যাশ ভেঙ্গে টাকা লুটপাট করেছে। আমি একটু ব্যস্ত থাকায় ঘটনাস্থলে যেতে পারিনি তবে তাদের থানায় যোগাযোগ করার পরামর্শ দেই। আমি নিজেও এ বিষয়ে থানায় পুলিশ প্রশাসনের লোকজনের সাথে যোগাযোগ করছি।

এ বিষয়ে সোনারগাঁ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, ‘এলাকারই কিছু লোকজন লকডাউনের সময় দোকানপাট বন্ধ রাখার জন্য চাপ সৃষ্টি করেছে বলে জেনেছি। এখানে পুলিশের কোন সম্পৃক্ততা ছিল না। তারপরও মারধর কিংবা ভাঙচুরের বিষয়ে কেউ অভিযোগ দিলে আমরা ব্যবস্থা নেবো।’

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ