সোমবার ২২ জুলাই, ২০১৯

এসপির এ্যাকশনে ফাঁকা ফুটপাত পেয়ে খুশি নগরবাসী

রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯, ২১:৩২

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদের উচ্ছেদ অভিযানের পর থেকে হকার ও যানজটমুক্ত পুরো শহর। ফলে স্বাচ্ছন্দ্যে চলাফেরা করতে পারছে নগরবাসী। উচ্ছেদ অভিযানের পর থেকে শহরে হকার ও যানজট না থাকায় পুলিশ সুপারের প্রতি সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে নগরবাসী। তবে অবৈধ পার্কিংয়ের প্রতি নজরদারি বাড়ানোর অনুরোধ জানিয়েছেন তারা।

রোববার (১৬ জুন) বিকেলে নগরীর বঙ্গবন্ধু সড়ক সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, অবৈধ পার্কিং ও ফুটপাতে হকার যাতে না বসে সেলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ সদস্য। ফলে বঙ্গবন্ধু সড়কের দুই পাশেই ফুটপাত পুরোপুরি ফাঁকা। নেই কোলাহল। ফাঁকা ফুটপাত দিয়ে স্বাচ্ছন্দ্যে হেঁটে যাচ্ছেন পথচারী।

শনিবার (১৫ জুন) বেলা ১২টায় চাষাড়া থেকে নিতাইগঞ্জ পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু সড়কে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ। এরপর থেকেই নগরীর বিভিন্ন পয়েন্ট দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ সদস্যরা। তার ধারাবাহিকতায় রোববার (১৫ জুন) সকালে সদর মডেল থানার নেতৃত্বে নগরীর দুই নং রেল লাইনের আশেপাশের গড়ে উঠা অস্থায়ী দোকান উচ্ছেদ করা হয়। শনিবারের মত রোববার একইভাবে পুলিশ সদস্যদের দায়িত্ব পালন করতে দেখা যায়। জেলা পুলিশের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন নগরবাসী। তবে কতোদিন এই অবস্থা থাকে সে বিষয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন অনেকে।

মো. আনিসুর রহমান একজন চাকরিজীবী। অফিস শেষে বিকেল ৫টায় ফুটপাত দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। ফাঁকা ফুটপাত দেখে অনেকটা অবাক হন তিনি। ফাঁকা ফুটপাতে হাঁটার অভিজ্ঞতা প্রকাশ করে আনিসুর রহমান বলেন, ‘অনেকদিন পর নগরীর ফুটপাত এত ফাঁকা দেখে খুব ভালো লাগছে। তবে দেখার বিষয় হলো কতদিন থাকে। আমরা অনেকবার দেখেছি যে পুলিশ সুপার বা জেলা পুলিশ এমন উদ্যোগ গ্রহণ করে। ২ দিন সব ঠিকঠাক থাকে কিন্তু তারপর আবার সব আগের মত। আশা করবো, আমাদের প্রিয় নগরী ২-৩ দিনের জন্য নয়; সব সময় যেন এমন থাকে।’

আরেকজন পথচারী জাকিয়া আক্তার বলেন, ‘ফাঁকা সড়কে খুব ভালো লাগছে। কিছুদিন আগেও হকারদের কারণে হাঁটা যাচ্ছিল না। এর জন্য পুলিশ সুপারকে ধন্যবাদ।’

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ