শুক্রবার ১৬ নভেম্বর, ২০১৮

এটা প্রাইম টার্গেট না, টার্গেট হচ্ছে আগামীবার: শামীম ওসমান

বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮, ২০:৩৯

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ এ কে এম শামীম ওসমান বলেছেন, ‘আল্লাহর রহমতে এবার শুরু করছি। এটা প্রাইম টার্গেট না, টার্গেট হচ্ছে আগামীবার। যদি আল্লাহ আগামী রমজান মাস পর্যন্ত বাঁচিয়ে রাখে তাহলে আগামীবার নারায়ণগঞ্জে হবে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ঈদের জামাত। এ কে এম শামসুজ্জোহা স্টেডিয়াম, ওসমানী স্টেডিয়াম, রাস্তা, ঈদগাহ এ চারটা মিলিয়ে আমরা আয়োজন করবো দেশের সবচেয়ে বড় ঈদের জামাত।’

বুধবার (১৫ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টায় নারায়ণগঞ্জের সর্ববৃহৎ ঈদ জামাত আয়োজনের প্রস্তুতি পরিদর্শন করতে এসে প্রেস নারায়ণগঞ্জকে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এহ্সানুল হক নিপু, ঈদ জামাতের সার্বিক তত্ত্বাবধায়ক মো. জিবরান প্রমুখ।

তিনি আরো বলেন, ‘আল্লাহ যদি চায় তাহলে এইটা আমি করবো। আমার ধারণা ওইটা হবে বাংলাদেশের বৃহত্তর ঈদের জামাত। এবার আমরা করছি নারায়ণগঞ্জের বৃহত্তর জামাত। হাদিসে আছে খোলা মাঠে ঈদের জামাত পড়া ভালো। কিন্তু সুযোগ নেই বলে মানুষ তা পারে না। তারপরও মানুষ জামাতে নামায পড়ে। খোলা আকাশের নিচে নামাজ পড়ার জন্য মানুষ এই রাস্তার মধ্যে ময়লা, কাদায়, আবর্জনার উপরও নামাজ পড়ে। আমি আগে ঈদগাহে নামাজ পড়তাম না, পর পর দুইবার পড়েছি। দেখলাম রাস্তার মধ্যে প্রচুর লোক বৃষ্টিতে ভিজে নামাজ পড়ছে। তাই এই উদ্যোগটি নেয়া।’

শামীম ওসমান আরো বলেন, ‘আমি জানতে পেরেছি এবং দেখলাম ৫০% কাজ ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়ে গেছে। ঈদের জামাতের আগে বাকি কাজগুলোও সম্পূর্ণ হয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ।’

উল্লেখ্য, গত ১২ আগস্ট (রবিবার) বেলা ১২টায় নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের দ্বিতীয় তলায় শীতলক্ষ্যা কমিউনিটি সেন্টারে নারায়ণগঞ্জে সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত আয়োজন বিষয়ক সভায় নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ সদস্য এ কে শামীম ওসমান বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জের মানুষ কষ্ট করে শোলাকিয়া যায় ঈদের নামাজ আদায় করতে। সবাই চায় বেশি মানুষের সঙ্গে নামাজ পড়তে। তাই এবার কোরবানির ঈদে নারায়ণগঞ্জেই হবে সবচেয়ে বড় ঈদের জামাত। শোলাকিয়ার মতো নারায়ণগঞ্জে ঈদগাহের নাম দেয়া হলো দেড়লাকিয়া।’

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ