সোমবার ২০ আগস্ট, ২০১৮

ইন্ডাস্ট্রিয়াল বিষাক্ত বায়ু নিয়ে প্রতিনিয়ত বাঁচতে হচ্ছে

বৃহস্পতিবার, ২৯ মার্চ ২০১৮, ১৯:৫৮

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: আকিজ ইন্ডাস্ট্রি অনেকটা ইস্ট ইন্ডিয়া কম্পানির মতোই। এরা আসছিলো ছোট একটা ইঊনিট নিয়ে ব্যবসা করতে, নারায়ণগঞ্জ শীতলক্ষ্যার তীরে সিমেন্ট কারখানা দিয়ে। সময় টা ২০০০ সাল।  

আজ ২০১৮ সাল কি বানাচ্ছে এখানে! বিশাল জায়গা জমি কিনে, নদী অবৈধভাবে কেটে, সীমানা প্রাচীর ভেঙে, পরিবেশ আইনকানুন কে বুড় আংগুল দেখিয়ে তাদের প্লান মাফিক বানাচ্ছে আটা ময়াদা ইঊনিট, সিমেন্ট ইঊনিট , নতুন সংযোগ করছে হোয়াইট সিমেন্ট। শীতলক্ষ্যা নদীর তলদেশ ভরাট হচ্ছে পর্যায়ক্রমে, যা নারায়ণগঞ্জবাসীর জন্য অশনিসংকেত। এসব নিয়ে কোন মহলের উদ্বেগ নাই বললেই চলে।

নারায়ণগঞ্জ ২৩নং ওয়ার্ডের খুবই ঘন বসতি এলাকা এই আকিজ ইন্ডাস্ট্রি এর আশপাশে। এক দিকে ইস্পাহানী আবাসিক এলাকা অন্য দিকে রসুলবাগ। ইস্পাহানী এলাকা বাসি দিনের বেলায়ও বাসার জানালা বন্ধ রাখতে হয়, ধুলাবালির কারনে। বহুতল বাসার ভাড়াটে অনেকেই কিছুদিন থাকার পর বাসা পরিবর্তন করে ফেলেন।

আকিজ ইন্ডাস্ট্রির গেটের কাছে আছে একটা কিন্ডারগার্ডেন, যেখানে প্রতিনিয়ত অভিভাবকরাও তাদের সন্তানদের পাঠাচ্ছেন ঠিকই কিন্তু সেই ধুলোবালি তাদের ক্ষতিই করছে।

তাহলে কি, ২৩ নং ওয়ার্ড কাঊন্সিলর এ বেপারে কিচ্ছুই জানেন না। এ বিষয়টা অনেকটা ঘোলাটে! এর পাশে থাকেন বিএনপি মহানগরের অরেক নেতা ও উপজেলা চেয়ারম্যান আতাঊর রহমান মুকুল। 

সবাই বড্ড ব্যাস্ত, আমাদেরই ধুলা আর ইন্ডাস্ট্রিয়াল বিষাক্ত বায়ু নিয়ে প্রতিনিয়ত বাচতে হচ্ছে।

মূল পোষ্টটি পড়তে ক্লিক করুন নিচের লিঙ্কে 

https://www.facebook.com/travellerbd98/posts/1269215433221821

সব খবর