মঙ্গলবার ৩১ মার্চ, ২০২০

ইউএনও নাহিদা বারিকের হস্তক্ষেপে দুটি বাল্য বিবাহ বন্ধ

শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০২০, ২১:৫৮

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লায় সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নাহিদা বারিকের হস্তক্ষেপে দুটি বাল্য বিবাহ বন্ধ করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৩ মার্চ) ফতুল্লার কাশিপুর ইউনিয়নের দুটি এলাকায় পৃথক ভাবে দুটি বাল্য বিবাহ বন্ধ করা হয়।

কাশিপুর ইউনিয়নে দুটি বাল্যবিবাহ হচ্ছে এমন সংবাদে সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার ইউএনও নাহিদা বারিক কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম সাইফউল্লাহ বাদলকে অবগত করলে তিনি পরিষদের লোকজন নিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠান বন্ধ করে দিয়ে বিবাহ বন্ধ করা হয়। আর দুটি এলাকার কনের অভিভাবকরা তাদের মেয়েদের ১৮ বছর পূর্ন না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ দিবে না এমন অঙ্গীকার করেন।

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নাহিদা বারিক জানান, কাশিপুরে দুটি এলাকায় বাল্যবিবাহ হচ্ছে এবং বিবাহের আয়োজন করা হয়েছে। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে স্থানীয় চেয়ারম্যান এম সাইফউল্লাহ বাদলের সহযোগিতায় বাল্যবিবাহ বন্ধ করে দেয়া হয়।

তিনি আরো জানান, কাশিপুর মধ্যপাড়া কলেজ রোডের মুন্সিবাড়ির হামিদুর রহমানের মেয়ে সাদিয়া আক্তারের ১৮ বছর পূর্ন না হওয়ার পরও বিবাহ দেয়ার চেষ্টা করা হয়। একই ইউনিয়নের দক্ষিণ নরসিংপুর এলাকার জলিলের মেয়ে সানজিদা আক্তার সুমাইয়ার ১৮ বছর পূর্ণ না হতে বিবাহ ঠিক করা হয়। পরে এ দুটি বিবাহ বন্ধ করে দেয়া হয়।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ