বুধবার ২২ মে, ২০১৯

আপনাদের বিবেকের কাছে প্রশ্ন, ফেসবুকে কাউন্সিলর খোরশেদ

সোমবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:৪৬

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ: আজ ২৫ শে ফেব্রুয়ারী। সোমবার।সকাল ১১টার সময় তোলা ছবি। জনগনের সুবিধার্থে কোটি টাকা ব্যায়ে মাসদাইর থেকে জেলা পরিষদ ডাক বাংলো পর্যন্ত ড্রেন ও ফুটপাত সহ বিকল্প রাস্তা তৈরী করেছিলাম। কিন্তু সেই ফুটপাতে মানুষ হাটতে পারে না শুধু মাত্র গুটি কয়েক অবিবেচক মানুষের জন্য। অনেকেই ফুটপাত ও ড্রেনের উপর ইট বালু সহ নানা নির্মাণ সামগ্রী রেখে ব্লক করে রাখেন।

জামতলা এলাকায় লোড আন লোড করার মত জায়গার অভাব এটা সত্য। প্রথমে আমরা হিরা কমিউনিটি সেন্টার ও প্যারিস ব্যাগেটের সামনে জেলা পরিষদের খোলা জায়গায় নির্মাণ সামগ্রী আনলোড করার ব্যবস্থা করে দিয়েছিলাম, কিন্তু জেলা পরিষদ কোন বিবেচনা ছাড়াই বানিজ্যিক ভাবে লীজ দিয়ে দোকান তোলার ব্যাবস্থা করেছে। কিন্তু মানুষের বাড়ী ঘর নির্মাণ তো বন্ধ করে রাখা যাবে না। তাই আমরা এলাকাবাসীর সুবিধার্থে নতুন রাস্তার ফুটপাতে রাতে নির্মাণ সামগ্রী নামিয়ে স্কুল কলেজ অফিস আদালত শুরু হওয়ার আগে অর্থাৎ সকাল ৭ টার মধ্যে সরিয়ে নেয়ার জন্য সুযোগ দিয়ে অনুরোধ করেছিলাম।

কিন্তু কে শোনে কার কথা? সারাদিন তারা ইট বালু ফুটপাত ও ড্রেনের উপর ফেলে রাখছে। দুই বা তিন জনের ইট বালুর জন্য প্রতিদিন কয়েক হাজার ছাত্র ছাত্রী ও সাধারন জনগনের চলাচল ব্যাহত হচ্ছে।

বর্ষা মৌসুম শুরু হতে যাচ্ছে। ড্রেনের উপরে রাখা বালু ড্রেনে ঢুকে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হওয়া মাত্র হাজার হাজার জনগন ভোগান্তিতে পরবে ও আমি ভাল ভাবে কাজ করছি না অভিযোগ উঠবে।

আমি আপনাদের বিবেকের কাছে প্রশ্ন রাখতে চাই, আপনাদের সহযোগিতা না পেলে আমি একা বা সিটি কর্পোরেশন কতটুকু কাজ করতে পারবে?

আপনাদের পায়ে ধরি আল্লাহর দোহাই লাগে দয়া করে আমাকে সহায়তা করুন। মনে রাখবেন একজনের ভুল হাজার হাজার জনগনের ভোগান্তির কারণ। আসুন সবাই মিলে একটি সুন্দর ও বাসযোগ্য ১৩ নং ওয়ার্ড গড়ে তুলি। 

সব খবর
সোশাল মিডিয়া বিভাগের সর্বশেষ