সোমবার ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯

আড়াইহাজারে ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগ

মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ১৬:৩৭

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: আড়াইহাজারে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে সুরুজ মিয়া (৩৮) নামে এক ব্যক্তিকে হত্যা করে হয়েছে বলে অভিযোগ নিহতের পরিবারের। নিহত সুরুজ ফতেপুর এলাকার মৃত আয়েত আলীর ছেলে।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে স্থানীয় ফতেপুর ইউনিয়নের বগাদী সিডি মার্কেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে নিহতের লাশ উদ্ধ্বার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহত সুরুজ মিয়া লেপতোষকের ব্যবসাসহ এলাকায় জমি কেনাবেচায়ও কাজ করতেন। তিনি তিন সন্তানের জনক। ঘটনার পর প্রধান সন্দেহভাজন আবুল হোসেনসহ অন্যরা পালিয়ে গেছে।

নিহতের স্ত্রী চন্দ্রবান বলেন, সুরুজ মিয়া সকাল সাড়ে ৬টার দিকে সিডি মার্কেটে যান। জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে তার স্বামীকে হত্যা করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী বকুল বলেন, ‘সুরুজ ও আবুল হোসেনের মধ্যে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে সকালে হাতাহাতি হচ্ছিল। এক পর্যায়ে আমি ঝগড়া থামিয়ে দিয়েছি।’

অপর প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় সোলাইমান মিয়ার ছেলে সিডি মার্কেটের চায়ের দোকানদার কামাল হোসেন বলেন, সুরুজ মিয়া তার দোকানে বসেই স্থানীয় কিছু গণ্যমান্য ব্যক্তির কাছে আবুল হোসেনের বিরুদ্ধে নালিশ করছিলেন। তিনি আরো বলেন, ‘এক পর্যায়ে সে ঢলে পড়েন।’ পরে তকে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

এদিকে নিহতের ভাই জহিরুল বলেন, সুরুজ মিয়ার সঙ্গে একই এলাকার আবুল হোসেন, গোলজার ও শাহআলমের সঙ্গে স্থানীয় বগাদী মৌজায় সাড়ে ৭ শতাংশ জমির কিছু অংশ নিয়ে বিরোধ ছিল। ঘটনার দিন বিরোধপূর্ণ ওই জমিতে মাটি ভরাটে বাঁধা দেয়াকে কেন্দ্র করে তাকে মারধর করা হয়েছে।’

তবে আবুল হোসেনসহ অন্যরা পলাতক থাকায় এবং তাদের পরিবারের লোকজনও এ ব্যাপারে কথা বলতে রাজি না হওয়ায় তাদের কোনো বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, স্থানীয় সিডি মার্কেট নামক এলাকায় একটি দোকানে স্থানীয় কিছু গণ্যমান্য ব্যক্তির কাছে আবুল হোসেনের নামে নালিশ করতে ছিলেন নিহত সুরুজ মিয়া। এ সময় হঠ্যাৎতিনি ঢলে পড়ে মারা যান।

ওসি আরো বলেন, ‘তবে বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। এখনই সঠিকভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না। মরদেহ ময়না তদন্তে পাঠানো হয়েছে।’

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ