বুধবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৮

আগামী মাসেই মহাকাশে উড়বে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট

বৃহস্পতিবার, ২৯ মার্চ ২০১৮, ১৩:৪৪

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: বাংলাদেশের প্রথম কৃত্তিম উপগ্রহ ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রন কমিশন ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

প্রকল্প পরিচালক সূত্রে জানা যায়, প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ফ্রান্সের থ্যালেস অ্যালেনিয়া আজ (২৯ মার্চ) উৎক্ষেপনের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানের কাছে একটি বেশেষ কার্গ বিমানের মাধ্যমে পাঠিয়ে দিবে। উৎক্ষেপনের দায়িত্ব পাওয়া প্রতিষ্ঠান মার্কিন ফার্ম স্পেসএক্স ৩০ মার্চ স্যাটেলাইটটি গ্রহণ করবে। এবং উৎক্ষেপণের জন্য প্রয়োজনীয় কাজ সম্পন্ন করবে।

এসময় তিনি আরও বলেন, ‘স্পেসএক্স উপগ্রহটি হাতে পাওয়ার তিন-চার দিনের মধ্যেই উৎক্ষেপনের সম্ভাব্য তারিখ আমাদের জানাবে। ‘তবে ধরে নেওয়া যায় যে আগামী মাসেই মহাকাশে যাত্রা শুরু করতে পারে বঙ্গবন্ধু স্যাটেরাইট-১। যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের কেপ ক্যানভেরাল থেকে স্যাটেলাইটটি উৎক্ষেপণ করা হবে।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটটি ১১৯ ডিগ্রি পূর্ব দ্রাঘিমায় এর জন্য নির্ধারিত স্লটে পৌছাতে ৮দিন সময় নেবে। যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা স্পেসএক্সের ‘ফ্যালকন-৯’ রকেটে করেই বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ মহাকাশে পাঠানো হবে।

কৃতৃম উপগ্রহটি টেলিভিশন চ্যানেল, ইন্টারনেট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান, ভি-স্যাট ও বেতারসহ ৪০ ধরনের সেবা দেবে। এছাড়াও প্রাকৃতিক দুর্যোগে টেরেস্ট্রিয়াল অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত হলে সারা দেশে নিরবচ্ছিন্ন যেপগাযোগব্যবস্থা থাকা, পরিবেশ যোগাযোগমাধ্যম হিসেবে ই-সেবা নিশ্চিৎ করবে।

এর আগে বিটিআরসি চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে মোট ৪০ টি ট্রান্সপন্ডার থাকবে। এর মদ্ধে ২০টি ট্রান্সপন্ডার বাংলাদেশের ব্যবহারের জন্য রাখা হবে। বাকি ২০টি ট্রান্সপন্ডার বিদেশি কােনো কোম্পানির কাছে বিক্রি করা হবে।

উপগ্রহটির উৎক্ষেপন খরচ ৩ হাজার ২৪৩ কোটি টাকা। এর মদ্ধে বাংলাদেশ সরকার ১ হাজার ৫৫৫ কোটি টাকা নিজ তহবিল থেকে এবং ১ হাজার ৬৮৮ কোটি টাকা বিদেশি সংস্থার কাছথেকে ঋণ নেওয়া হয়েছে।

সব খবর