রবিবার ১৬ মে, ২০২১

অনিয়ম ও দুর্নীতির তদন্তে নারায়ণগঞ্জের ১১ মাদ্রাসা

মঙ্গলবার, ৪ মে ২০২১, ১১:৪৯

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: হেফাজতে ইসলামের নিয়ন্ত্রিত নারায়ণগঞ্জের ১১ টি মাদ্রাসার অনিয়ম ও দুর্নীতির তদন্ত করেছেন গোয়েন্দারা। পুলিশ ইতোমধ্যেই এই ১১ টি প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাবের তথ্য চেয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের ফিন্যান্সিয়াল ইউনিটের কাছে। গোয়েন্দা নজরদারিতে থাকা ১১ টি মাদ্রাসায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানা এলাকায় অবস্থিত।

মাদ্রাসাগুলো হচ্ছে- সানারপাড় নিমাই কাশারীর জামিয়াতুল আবরার হাফিজিয়া মাদ্রাসা, সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় নয়া আটি কিসমত মার্কেটে অবস্থিত আশরাফিয়া মহিলা মাদ্রাসা, সানারপাড় আব্দুল আলী দারুস সালাম হিফজুল কোরআন মাদ্রাসা, মাদানীনগরের মাওলানা শাইখ ইদরীম আল ইসলামী, মাদানীনগরের আল-জামিয়াতুল ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদ্রাসা, নিমাই কাশারীর আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া নুরুল কোরআন মাদ্রাসা, মুক্তিনগর নয়াআটি ইফয়জুল উলুম মুহিউছঊন্নাহ আরাবিয়্যাহ মাদ্রাসা, ভূইয়াপাড়া জামিয়া মোহাম্মদীয়া মাদ্রাসা, সাইনবোর্ড জামিয়াতুল ইব্রাহিম মাদ্রাসা, মারকুজুল তাহরিকে খাতমি নবুওয়াত কারামাতিয়া উলুম মাদ্রাসা এবং সিদ্ধিরগঞ্জ সুমিলপাড়া নুরে মদিনা দাখিল মাদ্রসা।

জানা গেছে, এই মাদ্রাসাগুলো পরিচালনায় দেশের বাইরে ও ভেতর থেকে যেসব অনুদান এসেছে তার পরিমাণ এবং কোথায় কীভাবে এসব অর্থ ব্যয় হয়েছে তার হিসাব নেই। অনুদানের অর্থ মাদ্রাসার ব্যাংক হিসাবে জমা হওয়ার কথা থাকলেও বহু মাদ্রাসার ব্যাংক হিসাবই খোলা হয়নি। এসব মাদ্রাসাগুলোতে অর্থিক ব্যবস্থাপনা খুবই বিশৃঙ্খল। যেসব জায়গা থেকে টাকা-পয়সা এসেছে সেসব বিষয়ে অনুসন্ধানে অনেক তথ্য জানা যাচ্ছে। কিন্তু কোন কোন খাতে এসব অর্থ ব্যয় করা হয়েছে সেসব বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না। তদন্তে অনুদানের অর্থ অরাজকতামূলক কাজেও ব্যয় হয়েছে বলে তথ্য পেয়েছেন গোয়েন্দারা।

সূত্র: যুগান্তর

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ